ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই জ্ঞানীর কাজ

ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই জ্ঞানীর কাজ ভাবসম্প্রসারণ

মূলভাব: জ্ঞানী-গুণী ব্যক্তিরা ভবিষ্যৎকে সুন্দর ও সার্থক করার কথা ভেবেই পরিকল্পিতভাবে কাজ করে। ভবিষ্যতই হলাে আসল। অতীত গত আর বর্তমান ক্ষণস্থায়ী। কাজেই অনাগত ভবিষ্যতের দিকে নজর রেখে কাজ করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

ভাবসম্প্রসারণঃ অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ মিলেই মানবজীবন। বর্তমান একসময় অতীত হয়ে মহাকালে হারিয়ে যায়। আর বর্তমান এতই ক্ষণস্থায়ী যে বর্তমান বলতে আসলে কিছুই নেই। কারণ বর্তমান কিছুক্ষণের মধ্যে অতীতের অন্ধকারে হারিয়ে যায়। অপরদিকে, ভবিষ্যতের সীমা অসীম। অতীত ও বর্তমানের সকল কর্মকাণ্ড ও ভাবনার মূল কেন্দ্র ভবিষ্যৎ। অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে আমরা ভবিষ্যতের সুন্দর পথ তৈরি করি। অতীতের স্মৃতি রােমন্থন করে ভবিষ্যতের চলার পথের সকল বাধা অতিক্রম করার নতুন নতুন চিন্তা ও পরিকল্পনা মাথায় আসে । বর্তমান নিয়ে ভাবনার সুযােগ নেই বললেই চলে। ভবিষ্যৎ সকলের জন্য উন্মুক্ত এবং কখনাে শেষ হওয়ার নয়। তাই ভবিষ্যতের দিনগুলাে যাতে সুন্দর ও আনন্দে ভরপুর হয়ে ওঠে সেজন্য বুদ্ধিমান মানুষ বর্তমানের ওপর দাঁড়িয়ে ভবিষ্যতের জন্য কাজ করে। ভবিষ্যতের কথা ভেবেই জগতে যত গবেষণা, আবিষ্কার ও উদ্ভাবনের মতাে মহৎ প্রচেষ্টা চলছে। অনাগত ভবিষ্যতে মানুষ যাতে পৃথিবীতে সুন্দরভাবে বেঁচে থাকতে পারে সেই ভাবনা নিয়েই কাজ চলছে। ভবিষ্যৎ বংশধরদের জন্য সুন্দর পৃথিবী আমরা রেখে যেতে চাই। তাই আজই সেই লক্ষ্য নিয়ে বাস্তব পদক্ষেপ নিতে হবে। ক্ষুদ্র পিপীলিকাও ভবিষ্যতের কথা ভেবে খাদ্য সঞয় করে। তাই অতীত, বর্তমানকে বিসর্জন দিয়ে ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করাই অধিকতর শ্রেয়।

ভবিষ্যৎ অফুরন্ত সম্ভাবনাময়। অতীত থেকে আমরা শিক্ষা গ্রহণ করি। বর্তমান নদীর স্রোতের মতাে দ্রুত গতিতে হারিয়ে যায়, তাতে কোনাে কাজই পূর্ণতা লাভ করে না । কিন্তু ভবিষ্যৎ মানুষকে সকল কাজের পূর্ণতা দেয়। মানুষ পরিকল্পনা করে যথার্থভাবে বাস্তবায়নের ক্ষেত্র হচ্ছে ভবিষ্যৎ। ভবিষ্যতের ভাবনা ভেবে কাজ করলে মানব জীবন সুন্দর ও সার্থক হয়ে উঠবে।

ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই জ্ঞানীর কাজ (ভিন্ন লেখা)

মূলভাব : জ্ঞানী ব্যক্তিরা, কখনও অতীত বা বর্তমানকে আঁকড়ে ধরে থাকেন না। তারা সর্বদাই সুখী ও সমৃদ্ধ ভবিষ্যৎ ভাবনায় ব্যতিব্যস্ত থাকেন।

সম্প্রসারিত ভাব : অনাগত ভবিষ্যতে কি ঘটবে তা মানুষের জানার বাইরে। যে কোনাে মুহূর্তে যে কোনাে ঘটনা ঘটে যেতে পারে। তবে অতীত, বর্তমান আর ভবিষ্যত নিয়েই মানব জীবন। অতীত মানুষকে দেয় শিক্ষা, বর্তমান দেয় প্রেরণা এবং ভবিষ্যৎ দেয় পরিপূর্ণ বিকাশের অবকাশ। আজকের সুখ, আজকের বেদনা ইত্যাদি সহজেই কালের অতল গর্ভে হারিয়ে রূপ নিচ্ছে অতীতে। তাই অতীতের অনুশােচনায়, আক্ষেপে বর্তমানকে বিষিয়ে তােলা বা আবেগাপ্লুত করা কোনােমতেই বুদ্ধিমানের কাজ নয়। পণ্ডিতেরা বলেছেন, গতস্য সূচনা নাস্তি। বর্তমানের অর্জন ও সঞ্চয় সুদূরপ্রসারী ভবিষ্যতেরই বহিঃপ্রকাশ। আজকের চারা গাছটি ভবিষ্যতে মহীরুহ হয়ে ফুলে ফলে সমৃদ্ধ শশাভন প্রকৃতি উপহার দেবে। তাই সকলকেই বর্তমানের পাখায় ভর করে অনাগত ভবিষ্যতের স্বাপ্নিক জগতে পদার্পণের স্বপ্ন দেখতে হবে। সাথে সাথে চালিয়ে যেতে হবে নিরলস চেষ্টা ও সাধনা। কিন্তু তা না করে যারা অতীত ও বর্তমানের ভাবনা ভেবে ব্যাকুল হয়ে ওঠে তারা বুদ্ধিহীন ও অবিবেচক। তাদের অতীত ভাবনা, অনুশােচনা এবং ঘটমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ সবই বােকাদের কাজ। তাই অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে বর্তমানকে কাজে লাগিয়ে দৃঢ়পদে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাওয়াই বুদ্ধিমানের তথা জ্ঞানীর কাজ।

মন্তব্য : বর্তমান বা অতীতই চূড়ান্ত কিছু নয়। বর্তমান ও অতীতের পরিণতিই ভবিষ্যৎ আর ভবিষ্যই প্রধান।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *