সুসময়ে বন্ধু বটে অনেকেই হয় অসময়ে হায় হায় কেউ কারাে নয়

সুসময়ে বন্ধু বটে অনেকেই হয় অসময়ে হায় হায় কেউ কারাে নয় ভাবসম্প্রসারণ

ভাবসম্প্রসারণ: সুদিনে মানুষের বন্ধুর অভাব হয় না। এরা হচ্ছে সুযােগসন্ধানী কৃত্রিম বন্ধু। এরা সবসময় নিজের স্বার্থ উদ্ধারে ব্যতিব্যস্ত থাকে। দুর্দিনে এদের খুঁজে পাওয়া ভার।

মানুষ সাধারণভাবে আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও পরিবার-পরিজন নিয়ে সমাজে বসবাস করে। প্রত্যেকের সুখ-দুঃখে সবাই অংশগ্রহণ করে। কিন্তু সমাজে কিছু স্বার্থপর ও সুযােগসন্ধানী মানুষ আছে যারা শুধু নিজেদের সম্পর্কে চিন্তা-ভাবনা করে। নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্যে তারা অন্য লােকদের সাথে মেশে। তারা অর্থ বা কাজ বাগাতে মৌমাছির মতাে ঘুর ঘুর করে। এমনকি স্বার্থ হাসিলের জন্যে তােষামােদ করে, প্রয়ােজনে চাটুকারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়। এ ধরনের মানুষ কখনাে কারাে
প্রকৃত বন্ধু হতে পারে না । সত্যিকার বন্ধু সেই যে বন্ধুর বিপদের দিনে এগিয়ে আসে, তার পাশে থেকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। প্রয়ােজনে বন্ধুর দুঃখ দূর করতে সর্বোত্তম সাহায্য করে। কিন্তু দুঃসময়ে বিপদ দেখে অনেকেই কেটে পড়ে। বর্তমানে অধিকাংশ লােক স্বার্থসিদ্ধির জন্যে যেকোনাে হীন কাজ করতেও ইতস্তত করে না। তাই প্রকৃত বন্ধু খুঁজে পাওয়া খুবই
কঠিন। | প্রকৃত বন্ধু সেই যে কোনাে অবস্থাতেই বন্ধুকে ত্যাগ করতে পারে না, বন্ধুর বিপদে তার পাশে থাকে চির সাথির মতাে। কোকিলের আবির্ভাব ঘটে ঋতুরাজ বসন্তে। প্রকৃতি যখন অপূর্ব রূপে সাজে তখন কোকিল তার মাজা মাজা কালাে রূপ নিয়ে মিষ্টি কণ্ঠ দিয়ে সকলকে মুগ্ধ করে। কিন্তু যখন প্রকৃতি বিবর্ণ রূপ ধারণ করে তখন সে উধাও হয়ে যায়। সুসময়ের বন্ধুও ঠিক তেমন। এরা বসন্তের কোকিলের মতাে সুদিনে সঙ্গ দেয় আর দুর্দিনে আত্মগােপন করে। সত্যিকার বন্ধুর কোনাে দিন-ক্ষণ নেই। সবসময় সে বন্ধুর সাথি ।

আমাদের সুবিধাবাদী বন্ধুদের সম্পর্কে সবসময় সতর্ক থাকা উচিত। বন্ধু ভেবে তােষামােদ বা অনুনয়কারী কাররা ফাঁদে পড়া উচিত নয়।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *