Sabbir8986 / December 26, 2020

স্বদেশের উপকারে নাই যার মন কে বলে মানুষ তারে? পশু সেই জন

Spread the love

স্বদেশের উপকারে নাই যার মন কে বলে মানুষ তারে? পশু সেই জন ভাবসম্প্রসারণ

ভাবসম্প্রসারণ: একজন মানুষ জন্মের পর থেকে স্বদেশের মাটি, বাতাস ও পানি নিয়ে বেঁচে থাকে। স্বদেশের প্রতি তাই মানুষের অকৃত্রিম ভালােবাসা জন্মায়। আর যাদের স্বদেশের প্রতি ভালােবাসা নেই, মমত্ব নেই, দেশ ও জাতির মহাবিপর্যয়ে যাদের হৃদয় কাঁদে না, তারা অকৃতজ্ঞ ও পশুর সমান।

স্বদেশপ্রেম মানবচরিত্রের এক অপরিহার্য অঙ্গ। যে ব্যক্তি স্বদেশের প্রতি অবজ্ঞা পােষণ করে সে কখনাে দেশের উপযুক্ত নাগরিক হতে পারে না। কারণ যে স্বদেশ তাকে মায়ের মতাে করে গভীর ভালােবাসায় নিজেকে বিকশিত হওয়ার সুযোেগ করে দিচ্ছে তার প্রতি কৃতজ্ঞতাবােধ সকলের থাকা উচিত। এমনকি দেশের প্রয়ােজনে নিজের জীবন উৎসর্গ করতেও সদা প্রস্তুত থাকা উচিত। অপরদিকে, স্বদেশপ্রেমবিহীন মানুষ প্রকৃতপক্ষে মনুষ্যত্ব বিবর্জিত পশু বলে পরিচিত হয়। যে ব্যক্তির মন স্বদেশপ্রেমহীন সে স্বদেশের ক্ষতি সাধনেও পিছপা হয় না। বস্তুত মায়ের কাছে সন্তান যেমন চিরঋণী ঠিক তেমনি স্বদেশের কাছেও আমরা চিরঋণী। দেশপ্রেমিক মানুষ কখনাে দেশের অমঙ্গল, অকল্যাণ, ধ্বংস ও অন্যায়ের কাছে মাথা নত করে না। বরং জীবন উৎসর্গ করে দেশের হিত সাধন করে। সে কারণেই ১৯৭১ সালে স্বদেশপ্রেমী নাগরিকরা অন্যায়ের কাছে মাথা নত করে নিজ মূল্যবান জীবন উৎসর্গ করতে কুণ্ঠিত হননি। নিজ জীবন অপেক্ষা দেশের মর্যাদা তাদের কাছে অধিক গুরুত্বপূর্ণ ছিল। অন্যদিকে মুক্তিযুদ্ধের বিরােধিতা করে দেশদ্রোহীরা পশুর মতােই আচরণ করেছে। হত্যা ও নির্যাতনের দোসর হয়েছে। উত্তম চরিত্র ও মনুষ্যত্বে বলীয়ান হয়ে উঠতে চাইলে প্রত্যেককে স্বদেশকে ভালােবেসে এর উপকার সাধনে আত্মনিয়ােগ করতে হবে। এজন্যেই মহাজ্ঞানী ব্যক্তিরা বলে গেছেন, জননী, জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপী গরিয়সী।

যারা আত্মকেন্দ্রিক, দেশের হিত সাধন করে না, দেশের কল্যাণ কামনা করে না তারা মানুষ নামের কলঙ্ক । পশুর যেমন কোনাে বিবেক, মনুষ্যত্ব ও ঔচিত্যবােধ নেই এরাও তেমন। এ ধরনের মানুষ আর পশুতে কেবল পার্থক্য আকৃতির।

Submit a Comment

Must be required * marked fields.

:*
:*

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content

রচনা, ভাবসম্প্রসারণ,অনুচ্ছেদ,পত্র, আবেদন পত্র, সারাংশ-সারমর্ম , লিখন , বাংলা, ১০ম শ্রেণি, ২য় শ্রেণি, ৩য় শ্রেণি, ৪র্থ শ্রেণি, ৫ম শ্রেণি, ৬ষ্ঠ শ্রেণি, ৭ম শ্রেণি, ৮ম শ্রেণি, ৯ম শ্রেণি,  for class 10, for class 2, for class 3, for class 4, for class 5, for class 6, for class 7, for class 8, for class 9, for class hsc, for class jsc, for class ssc, একাদশ শ্রেণি, দ্বাদশ শ্রেণি