একুশে পদক অনুচ্ছেদ | বাংলা ২য় পত্র অনুচ্ছেদ রচনা

প্রশ্নঃ একুশে পদক নিয়ে বাংলা অনুচ্ছেদ লিখ।

উত্তরঃ

বাংলাদেশের একটি জাতীয় এবং দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার হলাে একুশে পদক। বাংলাদেশের বিশিষ্ট ভাষাসৈনিক, ভাষাবিদ, সাহিত্যিক, শিল্পী, শিক্ষাবিদ, গর্ষেক, সাংবাদিক, অর্থনীতিবিদ, দারিদ্র্যবিমােচনে অবদানকারী, সামাজিক ব্যক্তিত্ব ও
প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় পর্যায়ে অনন্য অবদানের স্বীকৃতি প্রদানের উদ্দেশ্যে একুশে পদক প্রদান করা হয়। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের শহিদদের স্মরণে ১৯৭৬ সাল থেকে এই পদকের প্রচলন করা হয়েছে। ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৪৮০ জন গুণী ব্যক্তি ছাড়াও ২টি প্রতিষ্ঠান একুশে পদক পেয়েছে। একুশে পদকে ২ লক্ষ টাকা, ১৮ ক্যারেট মানের ৩৫ গ্রাম স্বর্ণপদক এবং একটি সনদ প্রদান করা হয়। পদকটির ডিজাইন করেছেন শিল্পী নিতুন কুণ্ডু। প্রাথমিকভাবে নগদ অর্থ ২৫ হাজার টাকা দেওয়া হতাে, কিন্তু বর্তমানে ২ লক্ষ টাকায় উন্নীত করা হয়েছে। ১৯৭৬ সালে প্রথমবারের মতাে নয়জন গুণী ব্যক্তিকে একুশে পদক দেওয়া হয়। তারা হলেন কাজী নজরুল ইসলাম (সাহিত্য), আব্দুল কাদির (সাহিত্য), জসীমউদ্দীন (সাহিত্য), সুফিয়া কামাল (সাহিত্য), আবুল কালাম শামসুদ্দীন (সাংবাদিকতা), মুহম্মদ কুদরাত-এ-খুদা (শিক্ষা), আবদুস সালাম (সাংবাদিকতা), তফাজ্জল হােসেন মানিক মিয়া (সাংবাদিকতা), মুহম্মদ মনসুর উদ্দিন (শিক্ষা)। মরণােত্তর একুশে পদক প্রদানের দৃষ্টান্তও লক্ষ করা যায়। পুরস্কারের বিভাগ মােটামুটি নির্দিষ্ট হলেও বিজয়ী ব্যক্তির সংখ্যা কিন্তু প্রতি বছর একই নাও হতে পারে। এ পর্যন্ত বছরে সর্বনিম্ন একজন থেকে সর্বোচ্চ পনেরাে জন পুরস্কারের জন্যে নির্বাচিত হয়েছেন। সর্বশেষ একুশে পদক প্রদান করা হয়েছে ২০১৯ সালে। এ বছর একুশে পদকপ্রাপ্তদের সংখ্যা ২১। একুশে পদক জাতীয় কৃতী সন্তানদের সম্মানিত করার এক মহৎ উদ্যোগ হিসেবে সর্বমহলে স্বীকৃত।

একুশে পদক অনুচ্ছেদটি কেমন হয়েছে ? নতুন কিছু সংযোজন করা যায় বা বাদ দেওয়া প্রয়োজন? কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *