ভাবসম্প্রসারণ: দ্বার বন্ধ করে দিয়ে ভ্রমটারে রুখি সত্য বলে, ’আমি তবে কোথা দিয়ে ঢুকি’

দ্বার বন্ধ করে দিয়ে ভ্রমটারে রুখি
সত্য বলে, ’আমি তবে কোথা দিয়ে ঢুকি’ ভাবসম্প্রসারণ

মূলভাব : পৃথিবীতে সত্য ও মিথ্যা পাশাপাশি অবস্থান করে। জীবনের অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়েই মানুষ সত্য ও মিথ্যাকে চিনতে শেখে। ভুল-ভ্রান্তির ভয়ে মানুষ কর্মবিমুখ হলে জীবনে কখনও সাফল্য আসবে না।

সম্প্রসারিত ভাব : সত্য সূর্যালােকের ন্যায় স্বতঃপ্রকাশ। সত্য মানব জীবনের পরম আরাধ্য বিষয়। কিন্তু এ সত্যের নাগাল পাওয়া সহজসাধ্য নয়। সত্য অন্বেষণের জন্য প্রয়ােজন গভীর অন্তর্দৃষ্টি ও কঠোর সাধনা। কেননা অগণিত ভুল আর মিথ্যায় সত্য চাপা পড়ে থাকে। সত্যকে উপলব্ধি করতে হলে অন্তরকে কলুষমুক্ত করে সত্যকে সহজভাবে গ্রহণ করতে হবে। এ ছাড়া সত্যকে পাওয়ার সহজ কোনাে পথ নেই। জীবনে বাস্তব অভিজ্ঞতার মানদণ্ডেই সত্য-মিথ্যার যাচাই হয়। এজন্য মিথ্যা ছলনার ভয়ে জগৎ ও জীবনবিমুখ হয়ে কেউ যদি কর্ম জীবনে পা না বাড়ায় তবে হয়তাে মিথ্যাকে ঠেকানাে যাবে, কিন্তু সত্যকে উপলব্ধি করা যাবে না। তাই মহামতি গ্যাটে বলেছেন, “সত্যকে ধরাে, প্রতারণায় অভ্যস্ত হয়াে না। ” ঘরের দরজা জানালা বন্ধ রাখলে যেমন ঘরের ভেতর সূর্যালােক প্রবেশ করতে পারে না, তদ্রুপ আমরা যদি আমাদের মনের দরজা খুলে না রাখি, তাহলে জ্ঞানালােক অন্তরে প্রবেশ করতে পারবে না। জীবন ও জগৎকে সত্যিকার উপলদ্ধির মাধ্যমেই আমাদের আত্মমুক্তি। রূপকে বাদ দিয়ে যেমন সত্যজ্ঞান লাভ সম্ভব নয়, তেমনি দৃশ্যমান জগৎ ও জীবনকে বাদ দিয়ে সত্যজ্ঞান থেকে দৃষ্টি ফিরিয়ে নিয়ে ইন্দ্রিয়ের দ্বার রুদ্ধ করে যােগাসনের দ্বারা সত্যকে উপলব্ধি করা যায় না। কবির কথায় –

“ইন্দ্রিয়ের দ্বার-
রুদ্ধ করি যােগাসন- সে নহে আমার
যা কিছু আনন্দ আছে দৃশ্যে গন্ধে গানে,
তােমার আনন্দ রবে তার মাঝখানে।”

মন্তব্য : মানুষ ভুলের মােহে পথভ্রান্ত হবে এ ভয়ে জগৎ সংসার ও জাগতিক মােহবন্ধনকে পরিহার করলে বাস্তবেরসঙ্গে জীবনের বাস্তব যােগ ঘটবে না। ফলে শেষ পর্যন্ত জীবনের সত্য উপলদ্ধি করা সম্ভব হবে না। ভুল-ভ্রান্তির মধ্য দিয়েইমানুষ সত্য পথের সন্ধান পায়।

বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *