Home রচনা রচনা: সময়ের মূল্য | Class 3-4-5 |

রচনা: সময়ের মূল্য | Class 3-4-5 |

by Curiosityn
0 comment

→ সময়ের মূল্য ও গুরুত্ব রচনা

সময়ের মূল্য রচনা পয়েন্টসমূহ

  • সূচনা
  • সময়ের প্রয়োজনীয়তা
  • সময়ের সদ্ব্যবহার
  • সময়ের প্রতি উদাসীনতা
  • উপসংহার

সময়ের মূল্য রচনা

সূচনা :

সময় অমূল্য সম্পদ। জীবনে উন্নতি করতে হলে অবশ্যই সময়কে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে হবে। ইংরেজিতে একটি কথা আছে, “Time and tide wait for none.” অর্থাৎ সময় ও নদীর স্রোত কারো জন্য অপেক্ষা করে না। তাই সময়ের সদ্ব্যবহার করা প্রতিটি মানুষের জন্যই অত্যাবশ্যক।

প্রয়োজনীয়তা :

নদীর স্রোতের মতোই সময় চলমান। একজন মানুষ সময় নষ্ট না করে যদি প্রতিটি মুহূর্তকে কাজে লাগায়, তাহলে তার ক্ষণস্থায়ী জীবনও কর্মের মহিমায় উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। পৃথিবীতে যাঁরা অমরত্ব লাভ করেছেন, তাঁদের এ অমরত্বের মূলে রয়েছে সময়ের সদ্ব্যবহার।

সময়ের সদ্ব্যবহার :

মানুষের সামনে রয়েছে কর্মের বিপুল ক্ষেত্র। কিন্তু যে কোনো কাজ যথাসময়ে সম্পাদন না করলে জীবন অসম্পূর্ণই থেকে যায়। কর্মই মানুষকে পরিচিত করে তোলে পৃথিবীর বুকে। কর্মহীন মানুষ শত বছর বেঁচে থেকেও অমরত্ব লাভ করতে পারে না। মৃত্যুর মধ্য দিয়েই তার জীবনের পরিসমাপ্তি ঘটে। কিন্তু কর্মগুণে মানুষ পৃথিবীতে অমর হয়ে থাকে। কর্মনিষ্ঠ মানুষ বিন্দুমাত্র অবসর পায় না। তাই খেলার সময় খেলা,পড়ার সময় পড়া এবং কাজের সময় কাজ করা উচিত।

সময়ের প্রতি উদাসীনতা :

সময়ের সঠিক মূল্যায়ন না করলে প্রতিভাবান লোকও অধঃপতনে নিমজ্জিত হতে পারে। মানুষ গল্প-গুজব করে, অলসভাবে কর্তব্যে ফাঁকি দিয়ে অযথা মূল্যবান সময় নষ্ট করে। অথচ হারানো ধনসম্পদ জীবনে কোনো না কোনো সময় ফিরে পাওয়া গেলেও গত হয়ে যাওয়া সময় জীবনে আর কখনো ফিরে পাওয়া যায় না। সময়কে হেলায় নষ্ট করার জন্য পরবর্তী জীবনে অনুতাপ-অনুশোচনা ছাড়া আর কিছুই করার থাকে না।

উপসংহার :

জীবনে মানসম্মান ও খ্যাতি অর্জনের মূলে হচ্ছে সময়। ছাত্রদের উচিত, যে কোনো কাজ যথাসময়ে সম্পাদন করা। জীবনে সাফল্য অর্জন করতে হলে সময়ের মূল্য নিরূপণে সজাগ থাকা আবশ্যক। তাই ব্যক্তি ও জাতীয় জীবনে সময়ের গুরুত্ব সর্বাধিক।

4.3/5 - (24 votes)

You may also like

Leave a Comment